সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
পাখি মানব সমাজের ঘনিষ্ঠ \ প্রকৃতি প্রেমী \ দেশে আসছে অতিথি পাখি \ পাখি নিধন বন্ধ হোক \ ব্যাঙ, কুচে হারিয়ে যাচ্ছে সকল ধর্মের মূল কথা মানবসেবা মানবাধিকার পরিস্থিতির উপর জেলা পর্যায়ের ডায়ালগ সভায় -জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার মোঃ মনিরুল ইসলাম সাতক্ষীরায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস উদযাপন প্রস্তুতি সভা কানাডাকে উড়িয়ে শীর্ষে ক্রোয়েশিয়া বেলজিয়ামকে স্তব্ধ করে মরক্কোর দুর্দান্ত জয় যুব সমাজকে মাদক ও জঙ্গীবাদ থেকে দূরে রাখতে হবে -পুলিশ সুপার কাজী মনিরুজ্জামান ব্যাংকিং খাতের সবশেষ অবস্থা জানতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী আইনজীবী সহকারীরা বিচারঙ্গনের প্রাণ ঃ সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ কবি শেখ মফিজুর রহমান কোস্টারিকার সঙ্গে পারলো না জাপান রেকর্ড গড়েই আর্জেন্টিনাকে জয় এনে দিলো মেসি

অজানা রোগে আক্রান্ত শিমুলের হাতে পায়ে লোহার শিকল

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় শনিবার, ১৮ জুন, ২০২২

মোস্তাফিজুর রহমান, আশাশুনি \ অজানা রোগে আক্রান্ত আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের শিমুল ঢালীর অস্বাভাবিক আচরনে বিপাকে পিতা, বড় ভাইসহ সদ্য বিবাহিত স্ত্রী মিম। নিরুপায় হয়ে ছেলেকে লোহার শিকল দিয়ে ঘরের বারান্দায় বেঁধে রাখতে বাধ্য হয়েছে তার পরিবার। শিমুল ঢালী(২১) ইউনিয়নের কুঁন্দুড়িয়া গ্রামের সোহরাব ঢালীর ছোট ছেলে। পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মে মাসের ২১ তারিখে সাতক্ষীরার মাছখোলা গ্রামে তার বিয়ে হয়। বিয়ের ১সপ্তাহ পর থেকে সে হঠাৎ অস্বাভাবিক আচরন করতে শুরু করে। স্থানীয় ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসার পাশাপাশি বিভিন্ন কবিরাজের সাথে কথা বলে তাদের পরামর্শ অনুযায়ী ছেলের চিকিৎসা চালাতে থাকে। এভাবে বেশ কিছু দিনে তার শরীরের অবস্থা ও অস্বাভাবিক আচরনের কোন উন্নতি না হওয়ায় গত ৫জুন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান তারা। সেখানে দেখানোর পর তাকে হাসপাতালে ভর্তির কথা বলতেই শিমুল তার পিতা ও চাচার থেকে নিজেকে ছাড়িয়ে নিয়ে দৌড়ে অজানার উদ্দেশ্যে নিজেকে লুকাতে যায়। সামান্য দুরে যেতেই মাইক্রোর সাথে ধাক্কা লেগে শরিরের বিভিন্ন স্থানে জখম প্রাপ্ত হয়। ভর্তি করতে ব্যর্থ হয়ে দায়িত্বরত চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে। খুলনা মেডিকেল কলেজের ছাড়পত্র না থাকায় সাতক্ষীরা মেডিকেলে ভর্তি করতে ব্যর্থ হয় তারা। উপায়ন্তর বাড়িতে নিয়ে আসলে সে পূর্বের ন্যায় শরীরের বিভিন্ন অংশে কামড়ে ও খামচে মাংশ ছিঁড়তে থাকে। নিজের শরীরে কামড়ানোর পাশাপাশি সুযোগ পেলেই অন্যদেরকেও কামড়ানোর চেষ্টা করতে থাকে সে। বাড়ির সোকেচের গ্লাসসহ ঘরের আসবাবপত্র ভেঙে ফেলছে প্রতিনিয়ত। নিরুপায় হয়ে তাকে লোহার শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে। সামান্য পানি এবং জুস ছাড়া কিছুই খাচ্ছে না সে। এগুলোর সাথে ঘুমেরসহ অন্যান্য কিছু ঔষধ খাওয়ানো হচ্ছে তাকে। গত ২দিন থেকে বেশিরভাগ সময়ই ঘুমিয়ে সময কাটছে তার। এ পরিস্থিতিতে পরিবারের ছোট ছেলেকে নিয়ে চরম বিপাকে শিমুলের পিতা সোহরাব ঢালী। তিনি প্রতিবেদককে জানান, পরিবারের উপার্জনের ছেলেটিই এখন আমাদের বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিভাবে কোথায় চিকিৎসা করাবে ভেবে পাচ্ছে না সে। ছেলেকে কোথাও নিয়ে চিকিৎসা করানোর মত উপায়ও তো নেই। তার পাশে যাওয়া বা বাড়ি থেকে বের করা দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে। এমতাবস্থায় ছেলের সু-চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা, সিভিল সার্জন, সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী অধ্যাপক ডাঃ আ ফ ম রুহুল হক এমপি’র আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন শিমুলের পিতা সোহরাব ঢালী।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com