শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১২:৩৪ অপরাহ্ন

অর্থনৈতিক অঞ্চলে সৌদি আরবকে জমি দেওয়ার প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২

এফএনএস: বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ করতে তেল-সমৃদ্ধ সৌদি আরবকে জমি দেওয়ার প্রস্তাব করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল বুধবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মেদ এসসা ইউসেফ এসসা আল দুহাইলান সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে এলে তিনি এ প্রস্তাব দেন। প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় সংসদ কার্যালয়ে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। সাক্ষাৎকালে নবায়নযোগ্য জ¦ালানি খাতে বিনিয়োগে সৌদি আরবের আগ্রহের কথা প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত ইউসেফ এসসা আল দুহাইলান। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, সৌদি বিনিয়োগকে বাংলাদেশ স্বাগত জানাবে। সৌদি বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে জমি বেছে নিতে পারে। এক্সপো-২০৩০ আয়োজনে বাংলাদেশের সমর্থন চায় সৌদি আরব। প্রধানমন্ত্রী এক্সপো-২০৩০ সৌদি আরবকে সমর্থন দেন। মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে বিদ্যমান সংকটগুলো আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের ওপর গুরুত্বারোপ করেন প্রধানমন্ত্রী। মুসলিম দেশগুলোর মধ্যকার সমস্যা সমাধানে তৃতীয় দেশ বা মুসলিম দেশের বাইরে অন্য কাউকে আমন্ত্রণ না জানানোর আহŸান জানান তিনি। সৌদি রাষ্ট্রদূত তার দেশের বাদশাহ পক্ষ থেকে পবিত্র কোরআনের বাণী সম্বলিত স্বর্ণ ও রোপ্য খচিত ১০ কেজি ওজনের একটি গিলাফ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের প্রথম সরকার প্রধান যিনি সৌদি বাদশার পক্ষ থেকে এ ধরনের উপহার পেয়েছেন। বাংলাদেশ ও এদেশের জনগণকে হৃদয়ে বিশেষ স্থান দিয়ে উপহার পাঠানোয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে সৌদি বাদশাকে তার শুভেচ্ছা জানান। দুই পবিত্র মসজিদের খাদেম হিসেবে এবং মুসলিম উম্মাহর কল্যাণে অবদান রাখায় সৌদি বাদশা সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদকে শুভেচ্ছা জানান। সাক্ষাতে সৌদি রাষ্ট্রদূত বলেন, তার দেশের ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে নবায়ণযোগ্য জ¦ালানি খাতে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী। সৌদি রাষ্ট্রদূত বলেন, পযংটন, সংস্কৃতি, ব্যবসা-বাণিজ্যসহ বহুপাক্ষিক সহযোগিতার মাধ্যমে বাংলাদেশের সঙ্গে সৌদি আরবের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আগামীতে আরও বৃদ্ধি পাবে। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক জোরদারে দুই দেশের কর্তাব্যক্তিদের সফর বিনিময়ের ওপর গুরুত্বারোপ করেন র্ষ্ট্রাদূত। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com