শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০১:০৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
অস্বাভাবিক হারে বাড়ছে ঝুঁকিপূর্ণ যান মোটর সাইকেলের ব্যবহার ক্ষমতার অপপ্রয়োগ যাতে না হয় ডিসিদের তা নিশ্চিত করার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের মূল চাবিকাঠি ডিজিটাল সংযোগ -প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ পুলিশের ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবলদের প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত সাতক্ষীরা সরকারী মহিলা কলেজে উৎসবমূখর পরিবেশে সরস্বতী পূজা পালিত ইয়ং টাইগার্স অ-১৬ জাতীয় ক্রিকেট টুর্নামেন্ট কুষ্টিয়া জেলা খুলনা বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন শোভনালীতে স্বর্গীয় কার্তিক চন্দ্র দাশ স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টে চাম্পাফুল ক্রিকেট একাদশ চ্যাম্পিয়ন সাগরে লঘুচাপ সৃষ্টির আভাস বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জনে সাতক্ষীরা এবং বাস্তবতা সাতক্ষীরা প্রাথঃ শিক্ষা পরিবারের উদ্যোগে সরস্বতী পূজা উদযাপিত

আড়াই লাখ পাখির নীড় বানিয়ে নজর কেড়েছেন রাকেশ ক্ষত্রী

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

এফএনএস বিদেশ : রাকেশ ক্ষত্রী। দিলি­র অশোক বিহারের এই বাসিন্দা পেশায় আলোকচিত্র শিল্পী হলেও গোটা বিশ্বের কাছে আজ তার পরিচয় ‘নেস্টম্যান’ হিসাবেই। জীবদ্দশায় তিনি সব মিলিয়ে প্রায় আড়াই লাখ পাখির নীড় (বাসা) বানিয়ে নজির সৃষ্টি করেছেন। পাখিদের জন্য বাসা বানানোর কারণে তিনি বিভিন্ন পুরস্কারেও ভ‚ষিত হয়েছেন। পাখির আবাসস্থল কিভাবে বানাতে হয় সে বিষয়ে এখন সবাইকে নানাভাবে পরামর্শ দিচ্ছেন রাকেশ ক্ষত্রী। এক লাখের বেশি মানুষ তার কাছ থেকে ইতোমধ্যে পাখির বাসা বানানো শিখেছে। এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাকেশ ক্ষত্রী বলেন, ‘আমি ছোট থেকেই পাখিদের মধ্যে বড় হয়েছি। তখন থেকেই আমি অবুঝ এই প্রাণীগুলোর জন্য বাসা বানানোর কাজ শুরু করি। এখন পর্যন্ত আমি আড়াই লাখের বেশি বাসা তৈরি করেছি। একই সঙ্গে পাখির বাসা তৈরিতে আগ্রহী এমন এক লাখের বেশি ছেলে মেয়েদের এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়েছি।’শুরুর দিককার কথা মনে করে তিনি বলেন, ‘প্রথম দিকে লোকজন এ বিষয়টি নিয়ে খুবই হাসাহাসি করতো। তারা আমাকে ঠাট্টা করে বলতো আমার তৈরি বাসাগুলোতে কিভাবে পাখিগুলো বসাবাস করতে পারবে! কিন্তু যখন থেকে পাখি ওই ঘরগুলোতে প্রবেশ করতে শুরু করলো তখন তারা (পাখি) আমার তৈরি ওই ঘরগুলোতেই থাকতে বেশি পছন্দ করলো।’রাকেশ ক্ষত্রী বলেন, লিমকা বুকে তার কিছু রেকর্ড নথিভুক্ত করা হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে হাতে তৈরি পাখির বাসা এবং এ বিষয়ে বিভিন্ন কর্মশালায় অংশগ্রহণের মতো বিষয়গুলো। ২০১৯ সালে যুক্তরাজ্যের হাউজ অব কমন্স থেকে তাকে গ্রিন অ্যাপেল অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়। এ ছাড়া পাখির সুরক্ষা ও বিভিন্নমুখী উদ্যোগ বিষয়ক পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com