বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৬:১৫ অপরাহ্ন

ঈদুল আযহা : রাত পোহালেই ঈদ ঃ শেষ মুহুর্তের চেষ্টা পছন্দের গরু ছাগল সংগ্রহের ঃ গ্রামে গ্রামে হাটে বাজারে ও চলছে গরু ছাগল কেনা বেচা

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় রবিবার, ১৬ জুন, ২০২৪

দৃষ্টিপাত রিপোর্ট ॥ রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আযহা ঘরের দুয়ারে ঈদ আগমনী বার্তা কড়া নেড়েই চলেছে। ঈদুল আযহায় অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট্য পশু কুরবানী, আর তাই শেষ মুহুর্তে পছন্দের গরু ছাগল ক্রয়ের লক্ষ্যে ছুটছে সামর্থবান পশু কোরবানী করা ইচ্ছুকরা। আজ শেষ দিন। সাতক্ষীরার বিভিন্ন হাট বাজারে গত একমাস যাবৎ বেঁচাকেনা হয়েছে পশু। হাটের পাশাপাশি গ্রামে গ্রামে পশু পালনকারীদের বাড়ী বাড়ী ছুটেছে গরু ছাগল ক্রেতারা। খোজ নিয়ে জানাগেছে প্রতি বছরের ন্যায় এ বছর ও গ্রামে বাড়ী বাড়ী পৌছে ক্রেতারা গরু ছাগল ক্রয় করেছে। এক শ্রেণীর কোরবানী ইচ্ছুকরা হাট অপেক্ষা গ্রামে যেয়ে গরু ক্রয়ের অভ্যস্থ সর্বাধিক কারন গ্রামের গরু ক্রয় করলে ঈদের পূর্ব দিন পর্যন্ত সেই বাড়ীতে রাখা যায় গরুর খাদ্য খাবারের মুল্য নির্ধারন পরবর্তি সেই বাড়ীতেই রাখা এবারও শত শত গরু বাড়ী থেকে বিক্রি করেছে গরু পালনকারীরা। সাতক্ষীরার গ্রামে গ্রামে ব্যাপক গরু পালন এর কারনে ক্রেতারা হাটবাজার মুখি অপেক্ষা গ্রাম মুখিতার প্রবনতাও কম নয়। ক্রেতা বিক্রেতা, গরু ব্যবসায়ী সহ সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানাগেছে এবারের ঈদ মৌসুমে দৃশ্যতঃ বড় গরু অপেক্ষা ছোট আকৃতির গরুর মূল্য সর্বাধিক। আর গ্রামে গ্রামে বাসাবাড়ীতে গরু অপেক্ষাকৃত বড় আকারের। বিধায় বহু সংখ্যক মানুষ এখন ও পর্যন্তকোরবানীর গরু ও ছাগল ক্রয় করতে পারেনি। জেলার বড়দল, আবাদের হাট,পারুলিয়া গরুরহাট, রতনপুর হাট,তারালি হাট, তেরমাইল হাট সহ বিভিন্ন হাটে গত কয়েক সপ্তাহ ব্যাপী গরু ছাগলের উপস্থিতি ছিল উল্লেখযোগ্য কিন্তু বিক্রি সেই ভাবে হইনি। খোজ নিয়ে জানাগেছে স্থানীয় অপেক্ষা ব্যবসায়ীরা গরু ক্রয় করে অধিক, ঢাকা,সিলেট, চট্টগ্রাম সহ অন্যান্য এলাকার পাইকার ব্যবসায়ীরা গরু ক্রয় পরবর্তি ট্রাক ভর্তি করে রাজধানী সহ বিভিন্ন জেলার ঈদ বাজারে নিয়েছে। একাধিক গরু ক্রেতারা জানান হাটের অপেক্ষায় আছি গ্রামের গরু দুই/পাঁচটা অন্যদিকে হাটে অগনিত গরু পছন্দ করে এবং দরদাম যাচাই করে ক্রয় করা সম্ভব। তবে হাট বাজারে দালালের উৎপাত অনেককে হাটে যেয়েও গরু ক্রয় করাকে বাড়তি ভোগান্তী ও ঝামেলা মনে করেন। বড় গরুর দাম ছোট গরু অপেক্ষা কম হলেও অধিকাংশ ক্রেতাদের লক্ষ্য ছোট আকৃতির গরুর প্রতি। আজ জেলার অন্যতম বৃহত্তম গরুহাট পারুলিয়া বহু সংখ্যক ক্রেতা তাকিয়ে আছে পারুলিয়ার গরু হাটের দিকে কারন সোমবার ঈদ একটি মাত্ররাত কোথাও গরুটা রাখা যাবে অন্যদিকে শেষ দিন হওয়ায় সক্রিয় মুল্য গরুক্রয় করা সহজ হবে। বিক্রেতা রাও চাইবেন শেষ দিন গরু ছেড়ে দিই। পারুলিয়া হাটে দালালের মাত্রাতিরিক্ত উপস্থিতি ক্রেতাদেরকে বিরক্ত করলেও ঈদের আগের দিনের হাট হিসেবে এই হাটের প্রতিলক্ষ্য সকলের। দেশী গরুর চাহিদা বরাবরের ন্যায় এবারও সর্বাধিক,সাতক্ষীরায় বিভিন্ন প্রজাতির গরু সমাহার দেশী, জার্সি, ক্রস, নেপালী, হরিয়ানা,আইরিশ, বিভিন্ন জাতের গরু বিক্রি হচ্ছে। সাম্প্রতিক সময় গুলোতে গো খাদ্যের অভাব ও উর্ধমূল্যের কারনে গরু পালনের খরচ ও বেড়েছে অনেকগুন যে কারনে গরুর বাজার উর্ধমুখি, এক শ্রেনির গো পালনকারীরা গরুর ওজন বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য শরীর সুশ্রী ও সুন্দর করতে পোল্ট্রি ফিড খাওয়ানোর প্রতি আগ্রহ বেশী। সাতক্ষীরার একাধিক হাটে প্রচন্ড রৌদ্রে বিক্রি করতে নিয়ে আসা কোরবানীর গরুর মৃত্যু ঘটেছে। ব্যবসায়ীদের আশঙ্কা ফিড খাওয়ানো গরু শক্তি ও সামর্থে অধিকতর দুর্বল হয়ে আর এ কারনে রৌদ্র সহ্য করার সক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। গরুর পাশাপাশি চাই পছন্দের ছাগল, এক শ্রেনির ক্রেতারা একক ভাবে পশু কোরবানীর প্রতি আগ্রহী তারা সাত/পাঁচ বা একক ভাবে গরু কোরবানী নাকরে ছাগল কোরবানী করাই শ্রেয় মনেকরে যে কারনে গরুর পাশাপাশি শেষমুহুর্তে পছন্দের ছাগলের প্রতি ঝুকছে। আর মাত্র এক রাত আর সময়ের মধ্যে সংগ্রহ করতে হবে গরু ছাগল যে কারনে শেষ মুহুর্তের প্রচেষ্টা পছন্দের গরু ছাগল।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com