রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০২:২০ অপরাহ্ন

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে চলছে বিআরটিসির বাস

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

এফএনএস: গত ২ সেপ্টেম্বর ঘনবসতির মেগাসিটি রাজধানীবাসীর জন্য নতুন দিগন্ত ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে উন্মোচিত হয়। নতুন এ যাত্রাপথ নিয়ে সাধারণ মানুষ আশায় বুক বেঁধে থাকলেও নিচের সড়ক যানবাহনে ঠাসা আর উড়ালসড়ক সম্পূর্ণ ফাঁকা। এমন প্রেক্ষাপটে সাধারণ মানুষকে দ্রুতগতির এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের সুফল দিতে বিআরটিসি আটটি বাস নিয়ে চালু করলো যাত্রীসেবা। বিআরটিসির একটি বাস সকাল ১১টা ২৭ মিনিটে ফার্মগেটের খেজুরবাগান থেকে যাত্রা শুরু করে। বিজয় সরণি র‌্যাম্প দিয়ে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে ওঠে। ১১টা ৫০ মিনিটে টোল দিয়ে মূল এক্সপ্রেসওয়েতে যুক্ত হয়। ১২টা ৬ মিনিটে বাসটি বিমানবন্দর এলাকায় পৌঁছায়। গতকাল সোমবার সকাল ১১টা থেকে থেকে পরীক্ষামূলকভাবে সংস্থাটির আটটি দোতলা বাস চলাচল উদ্বোধন করা হয়। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে এ পথের যাত্রী আট বছর বয়সী সাঈদা আরিবা আব্দুল্লাহ তার মাকে ফোন কলে বলছিল, মা জানো অনেক মজা লাগছে। ফাঁকা রাস্তায় বাবার সঙ্গে আমি আর বোন বাসে উঠেছি। এটা দোতলা বাস। সব সাংবাদিকরা আমাদের সঙ্গে কথা বলছেন। আরিবার বাবা আবদুল্লাহ হাদি বলেন, আমি এর আগে অনেকবার এ রাস্তায় গিয়েছি। তবে সেটি দীর্ঘ সময়ের পথ ছিল। আজ ১৫ মিনিটে যাওয়া যাবে। পরীক্ষামূলকভাবে শুরুতে আটটি দোতলা বাস চলাচল করবে উত্তরা থেকে ফার্মগেট পর্যন্ত। কিলোমিটার প্রতি ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে দুই টাকা ৪৫ পয়সা। সে হিসাবে ফার্মগেট থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত ১৫ কিলোমিটার ৩৫ টাকা, আর জসীমউদ্দীন পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটার পথ ৪০ টাকায় যেতে পারবেন নগরবাসী। এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে বিআরটিসির বাস চলবে অনেকটা ‘শাটল’ সার্ভিসের মতো। অর্থাৎ শুধু উড়ালসড়ককে কেন্দ্র করে। ফার্মগেটের খেজুরবাগানের কাছ থেকে বাসগুলো ছাড়বে। এরপর উড়ালসড়ক দিয়ে উত্তরা জসীমউদ্দীন রোড হয়ে খেজুরবাগান এলাকায় ফিরে আসবে। এভাবে সকাল ৭টা থেকে সারা দিন চলবে বাসগুলো। রাত পর্যন্ত যতক্ষণ যাত্রী পাওয়া যাবে, ততক্ষণ চলবে। যাত্রী চাহিদার ভিত্তিতে পরবর্তী বাসের সংখ্যা আরও বাড়ানোর কথা জানিয়েছে বিআরটিসি। বিআরটিসির চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম বলেন, ফার্মগেট প্রান্তের খেজুরবাগান থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত ১৫ কিলোমিটারের ভাড়া ৩৫ টাকা। আর উত্তরার জসীমউদ্দীন অ্যাভিনিউ পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটারের ভাড়া ৪০ টাকা। অর্থাৎ কিলোমিটার প্রতি ভাড়া দুই টাকা ৪৫ পয়সা। তিনি বলেন, ই-টিকিটিং ব্যবস্থার কারণে বেশি ভাড়া নেওয়ার সুযোগও থাকছে না। এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে চললেও যাত্রীদের কাছ থেকে বিআরটিএর নির্ধারিত ভাড়াই নেওয়া হবে। আপাতত টোলের টাকা ভাড়ার সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে না। গত ২ সেপ্টেম্বর ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। খুলে দেওয়া হয় বহুল কাক্সিক্ষত এক্সপ্রেসওয়ের ১১.৫ কিলোমিটার অর্থাৎ বিমানবন্দর থেকে ফার্মগেট পর্যন্ত অংশ। আগামী জুনের মধ্যে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুতুবখালী পর্যন্ত এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। তখন এর পুরো সুফল পাবে নগরবাসী।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com