মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ১১:০২ পূর্বাহ্ন

কয়রায় মসজিদের ভবনের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপনকালে এমপি বাবু

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় শনিবার, ১০ জুন, ২০২৩

কয়রা প্রতিনিধি \ খুলনা-৬, (কয়রা-পাইকগাছা) সংসদ সদস্য আলহাজ¦ মোঃ আকতারুজ্জামান বাবু বলেছেন, দেশে ইসলামের জন্য বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ সরকার যে কাজ করেছে, অন্য কোন সরকার তা করেনি। শুধু মুখে ইসলামের কথা বলে ফায়দা লোটা বিএনপি-জামায়াতসহ ইসলামের লেবাস ধরে যারা ইসলাম ও দেশের ক্ষতি করতে চায়, তাদের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। শুক্রবার (৯ জুন) দুপুরে কালনা-শিমলারআইট-অন্তাবুনিয়া বাইতুল মামুর জামে মসজিদের নতুন ভবনের ভিত্তি স্থাপনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এমপি বাবু বলেন, যারা স্বাধীনতা চায়নি তারা ইসলামের কথা বলে দেশে লাখ লাখ নিরীহ মুসলমানকে হত্যা করেছে। বঙ্গবন্ধুর পূর্ব পুরুষেরা বাগদাদ থেকে ধর্ম প্রচারের জন্য এদেশে এসেছিলেন। স্মরণ করিয়ে দিয়ে সাংসদ বলেন,বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যেমন বাংলাদেশের মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিকে জাগরিত করতে ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছেন। তেমনি তার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রেী শেখ হাসিনাও আধুনিক ইসলাম বিস্তার ঘটাতে অর্ভুতপূর্ব অবদান রেখে চলেছেন। কওমী মাদ্রাসার স্বীকৃতি অন্য কেউ দেয়নি, ইসলামি আরবি বিশ^বিদ্যালয় অন্য কেউ প্রতিষ্ঠা করেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনায় সরকার নিজস্ব অর্থায়নে সারা দেশে নির্মিত হচ্ছে আধুনিক নির্মাণশৈলী আর নান্দনিক ডিজাইনের ৫৬০ টি মডেল মসজিদ। শুধু নামায আদায় নয় এসব মসজিদে হবে গবেষণা, ইসলামী সংস্কৃতি ও জ্ঞানচর্চা কেন্দ্র। এ দেশের ইতিহাসে বিরল ঘটনা। জেলা-উপজেলায় মসজিদ মক্তব নির্মাণ করে ইমাম প্রশিক্ষকদের বেতন ভাতা অন্য কেউ দেয়নি, বঙ্গবন্ধু কন্যা ও তার সরকার দিয়েছে। দেশে প্রায় এক লাখ মসজিদভিত্তিক মক্তব প্রতিষ্ঠা, মক্তব প্রতি শিক্ষককে প্রতি মাসে পাঁচ হাজার দুইশত টাকা ভাতা দেওয়া, পাশাপশি বিশ হাজার দারুল আরকাম ইবতেদায়ী মাদ্রাসাকে বার হাজার টাকা করে মাসিক ভাতা শেখ হাসিনা নিজ উদ্যোগে চালু করেছেন, জানান তিনি। সে কারনে বিএনপি –জামায়াত যারা শুধু নির্বাচন এলে মধুর কথা বলে, কিন্তু ইসলামের জন্য কোন কাজ করে না, তাদের অপ্রপ্রচারের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে এবং ইসলামের লেবাস ধরে যারা ইসলাম ও দেশের ক্ষতি করতে চায়, তাদের বিষয়ে সদাসতর্ক থাকতে হবে বলেন আকতারুজ্জামান বাবু। মসজিদের সভাপতি সাবেক ৪ নং ওয়ার্ড মেম্বর ও আওয়ামীলীগ নেতা সাহেব আলী খোকনের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম শফিকুল ইসলাম, কয়রা থাান অফিসার ইনচার্জ এবিএমএস দোহা, কয়রা সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম বাহারুল ইসলাম, উত্তর বেদকাশি ইউপি চেয়ারম্যান সরদার নুরুল ইসলাম, মহেশ^রীপুর ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক শাহনেওয়াজ শিকারি, বাগালী ইউপি চেয়ারম্যান আঃ সামাদ গাজী, আমাদী ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান জুয়েল, দক্ষিণ বেদকাশি ইউপি চেয়ারম্যান আছের আলী মোড়ল, উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাফরুল ইসলাম পাড়, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক ও কৃষকলীগের সভাপতি প্রভাষক শাহাবাজ আলী, মহারাজপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আলম, মহারাজপুর ইউপি সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান বিভুতি ভূষণ রায়, আবু সাইদ বিশ^াস, যুবলীগ নেতা এ্যাডঃ আরাফাত হোসেন, জাকারিয়া হোসেন, শ্রমিক লীগ সভাপতি আঃ হালিম ও সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, প্রজন্মলীগ নেতা শামিম হোসেন, সাবেক ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক বাদলসহ ইউনিয়ন, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ ও এলাকার শতশত ধর্মপ্রাণ মূসাল্লী।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com