সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৯:১৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
পাখি মানব সমাজের ঘনিষ্ঠ \ প্রকৃতি প্রেমী \ দেশে আসছে অতিথি পাখি \ পাখি নিধন বন্ধ হোক \ ব্যাঙ, কুচে হারিয়ে যাচ্ছে সকল ধর্মের মূল কথা মানবসেবা মানবাধিকার পরিস্থিতির উপর জেলা পর্যায়ের ডায়ালগ সভায় -জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার মোঃ মনিরুল ইসলাম সাতক্ষীরায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস উদযাপন প্রস্তুতি সভা কানাডাকে উড়িয়ে শীর্ষে ক্রোয়েশিয়া বেলজিয়ামকে স্তব্ধ করে মরক্কোর দুর্দান্ত জয় যুব সমাজকে মাদক ও জঙ্গীবাদ থেকে দূরে রাখতে হবে -পুলিশ সুপার কাজী মনিরুজ্জামান ব্যাংকিং খাতের সবশেষ অবস্থা জানতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী আইনজীবী সহকারীরা বিচারঙ্গনের প্রাণ ঃ সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ কবি শেখ মফিজুর রহমান কোস্টারিকার সঙ্গে পারলো না জাপান রেকর্ড গড়েই আর্জেন্টিনাকে জয় এনে দিলো মেসি

প্রচন্ড ঠান্ডায় প্যারিসের রাস্তায় মরে পরে রইলেন বিখ্যাত আলোকচিত্রী, দেখল না কেউ

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় বুধবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

এফএনএস আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সুইজারল্যান্ডের বিখ্যাত আলোকচিত্রী রেনে রবার্ট প্রচন্ড ঠান্ডায় প্যারিসের রাস্তায় পড়ে ছিলেন নয় ঘণ্টা, কিন্তু কেউ তার দিকে ফিরেও তাকায়নি। এভাবে তাঁর মৃত্যু আর মানুষের নির্বিকার আচরণ ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে ফ্রান্সে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের। ৮৫ বছর বয়সী রেনে রবার্ট দীর্ঘ সময় মুমূর্ষু অবস্থায় পড়ে থাকলেও কেউ তাঁকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেনি। অথচ তিনি দীর্ঘদিন ধরে প্যারিসের ওই এলাকাতেই বসবাস করে আসছিলেন, ওই রাস্তায় তিনি নিয়মিত হাঁটতেন। রেনে রবার্টের তোলা স্পেনের জনপ্রিয় ফ্ল্যামেংকো তারকাদের ছবি তাকে সুখ্যাতি এনে দিয়েছিল। তাঁর এক বন্ধুর বরাত দিয়ে গার্ডিয়ান লিখেছে, হাজার হাজার মানুষের চোখ এড়িয়ে যাওয়ার পর অবশেষে তাকে বাঁচাতে এগিয়ে এসেছিলেন এক গৃহহীন। তবে ততক্ষণে খুব দেরি হয়ে গেছে। তার আগেই মারা যান রবার্ট। মানুষের এমন আচরণকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই অমানবিক ও বর্বর বলছেন। নেদারল্যান্ডসে স্পেনের দূতাবাস এক টুইটে লিখেছে, ‘ক্যামেরার ফ্রেমে ফ্ল্যামেংকো শিল্পীদের অমর করে তোলা রেনে রবার্টের মৃত্যু আমাদের সামগ্রিক মানবিক চেতনাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে গেল।’

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com