মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:০০ অপরাহ্ন

ফের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পিএনজি

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় শনিবার, ২৯ জুলাই, ২০২৩

এফএনএস স্পোর্টস: জিতলেই নিশ্চিত বিশ্বকাপের টিকেট, হারলেও থাকতো সুযোগ। তবে শেষ পর্যন্ত আর অপেক্ষায় থাকতে হলো না পাপুয়া নিউ গিনিকে। ফিলিপিন্সকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে জায়গা করে নিল তারা। পূর্ব এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে শুক্রবার তাদের জয় ১০০ রানে। টনি উরা, আসাদ ভালা ও চার্লস আমিনির ঝড়ো ফিফটিতে ২২৯ রানের পুঁজি গড়ে পিএনজি। বোলারদের নৈপুণ্যে তারা ফিলিপিন্সকে ১২৯ রানেই আটকে দেয়। পাঁচ ম্যাচের সবকটি জেতায় এক ম্যাচ বাকি থাকতেই এই অঞ্চলের বাছাইয়ে শীর্ষে থাকা নিশ্চিত হয়ে গেছে পিএনজির। সংযুক্ত আরব আমিরাতে ২০২১ সালের বিশ্বকাপে প্রথমবার অংশ নেয় পিএনজি। গ্রæপ পর্বে তিন ম্যাচের সবকয়টি হেরে বিদায় নেয় তারা। পরে উৎরাতে পারেনি ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। এক আসর পর বিশ্বকাপে ফিরল তারা। জাপানের সামনে অবশ্য সুযোগ ছিল পিএনজির অপেক্ষা বাড়িয়ে নিজেদের আশা বাঁচিয়ে রাখার। কিন্তু ভানুয়াতুর বিপক্ষে তারা ৫ উইকেটে হেরে গেছে। ২০ দলের ২০২৪ বিশ্বকাপ হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রে। ১২ দলের জায়গা নিশ্চিত হয়েছে আগেই। স্বাগতিক দুই দেশ, গত বিশ্বকাপের শীর্ষ আট দল- অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ভারত, নেদারল্যান্ডস, নিউ জিল্যান্ড, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কা এবং র‌্যাঙ্কিংয়ের ভিত্তিতে আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ জায়গা পেয়েছে মূল আসরে। বিভিন্ন আঞ্চলিক বাছাই থেকে আসবে আরও ৮ দল। এরইমধ্যে নিশ্চিত হয়েছে তিনটি। ইউরোপিয়ান অঞ্চল থেকে বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপের মূল পর্বে জায়গা করে নিয়েছে আয়ারল্যান্ড ও স্কটল্যান্ড। তালিকায় ১৫তম দল হলো পিএনজি। এর বাইরে এশিয়া অঞ্চলের বাছাই থেকে দুটি, আফ্রিকা অঞ্চলের বাছাই থেকে দুটি এবং আমেরিকা অঞ্চলের বাছাই থেকে একটি দল জায়গা পাবে মূল পর্বে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে সব বাছাইপর্ব। বিশ্বকাপে ২০ দল চারটি গ্রæপে ভাগ হয়ে খেলবে প্রথম রাউন্ডে। প্রতি গ্রæপের শীর্ষ দুটি দল যাবে সুপার এইটে। সেখানে দলগুলি খেলবে দুটি গ্রæপে ভাগ হয়ে। দুই গ্রæপের শীর্ষ দুটি করে দল খেলবে সেমি-ফাইনালে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com