বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন

বাগেরহাটে বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যা

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় সোমবার, ১৪ মার্চ, ২০২২

এফএনএস: বাগেরহাটের চিতলমারীতে সেচযন্ত্র বন্ধের জন্য ডেকে নিয়ে শৈলেন্দ্র নাথ মন্ডল (৭০) নামে এক বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যা করেন তার ধান ক্ষেতের জন্য আনা দুই শ্রমিক। গতকাল রোববার (১৩ মার্চ) সকালে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। নিহত শৈলেন্দ্র নাথ মন্ডল চিতলমারী উপজেলার খিলগাতি গ্রামের বাসিন্দা। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে চিতলমারী থানার ওসি এ এইচ এম কামরুজ্জামান খান বলেন, তিন মেয়ের বিয়ে হয়ে যাওয়ায় বাড়িতে বৃদ্ধ শৈলেন্দ্র নাথ মন্ডল ও তার স্ত্রী থাকতেন। গত বুধবার পার্শ্ববর্তী ফকিরহাট থেকে (শ্রমিক বিক্রির হাট) ধানের ক্ষেতে কাজ করার জন্য দুজন শ্রমিক নিয়ে আসেন শৈলেন্দ্র নাথ। তাদের বাড়ি বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলায়। গত শনিবার রাতে বাড়ির পার্শ্ববর্তী তার ক্ষেতে পানি সেচের মেশিন চলছিল। সেই মেশিনটি বন্ধ করতে তাকে ওই দুই শ্রমিক সঙ্গে যেতে বলেন। সেখানে গেলে ওই বৃদ্ধকে তারা পরিকল্পিতভাবে গলা কেটে হত্যা করেন। ওসি আরও বলেন, দুই শ্রমিক বাড়িতে এসে শৈলেন্দ্র নাথের স্ত্রীকেও হত্যা করে বাড়িতে থাকা স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু বৃদ্ধা বিষয়টি বুঝতে পেরে কৌশলে ঘরের ভেতর থেকে বের হয়ে ডাক-চিৎকার দিলে দুজন পালিয়ে যান। ওসি এ এইচ এম কামরুজ্জামান খান বলেন, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তারা ওই বৃদ্ধ দম্পতিকে হত্যা করে বাড়িতে থাকা স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা লুটে নেওয়ার জন্য পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। ঘাতকদের আটকে পুলিশি অভিযান অব্যহত রয়েছে। পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু: বাগেরহাটের শরণখোলায় পানিতে ডুবে ওমর ফারুক নামের চার বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে উপজেলার উত্তর সাউথখালী গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মারা যাওয়া ওমর ফারুক উপজেলার রাজাপুর গ্রামের রেজাউল কবির-পারভিন বেগম দম্পতির ছেলে। সাউথখালী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) মেম্বার আলামিন খান জানান, শিশুটির বাবা-মা জীবিকার কাজে চট্টগ্রাম থাকেন। এক সপ্তাহ আগে সেখান থেকে খালাতো বোন হাফিজার সঙ্গে উত্তর সাউথখালী গ্রামে মামা কবির মৃধার বাড়িতে বেড়াতে আসে শিশু ওমর। গতকাল রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাড়ির সবার অগোচরে খেলতে গিয়ে পুকুরে পড়ে যায় শিশুটি। পরে খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে তাকে পুকুরে ভাসতে দেখা যায়। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে শরণখোলা উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। শরণখোলা থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান জানান, শিশুটির লাশ পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করে পরিবারের কাছে মরদহে হস্থান্তর করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com