বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৩:২৬ পূর্বাহ্ন

ভয়াবহ হামলা আশঙ্কায় ইসরাইল

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় সোমবার, ৮ জুলাই, ২০২৪

দৃষ্টিপাত ডেস্ক॥ দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর সদস্যরা ফিলিস্তিনিদের কে নির্বিচারে হত্যাকান্ড পরিচালনা করে চলেছে। দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর জন্য দিনে দিনে গাজা উপত্যকা বিপদজনক হয়ে পড়েছে। ইসরাইলি বাহিনীর সদস্যরা গাজা উপত্যকার প্রতিটি প্রান্তে হামাসের দ্বারা প্রতিরোধ হামলার শিকার হচ্ছে। এমন কোন দিন নেই, এমন কোন সময় নেই যে দিনে বা সময়ে ইসরাইলি সেনারা হামাস সদস্যদের দ্বারা হামলার শিকার হচ্ছে না। যে কোন সময়ে হামাসএবং ইসরাইলের মাঝেই বড় ধরনের সহিংসতার ঘটনা ঘটতে পারে। ইসরাইল এবং তার সেনা বাহিনী সাম্প্রতিক সময় গুলোতে বিশেষ আতঙ্কে দিন যাপন করছে কারন তাদের আশঙ্কা হামাস কর্তৃক হামলার। গতকাল কাতার ভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে গত ৭ অক্টোবরের ন্যায় হামাস আবারও ইসরাইলের অভ্যন্তরে বড় ধরনের হামলা পরিচালনা করতে পারে আর বর্তমান যুদ্ধ বিরতি আলোচনা তথা যুদ্ধ বিরতিকে ত্বরান্বীত করার লক্ষে হামাসের পক্ষ হতে উক্ত হামলা পরিচালনা করা হতে পারে। আল জাজিরার খবরে আরও বলা হয়েছে হামাস কর্তৃক ইসরাইলের অভ্যন্তরে অথবা গাজা উপত্যকায় অবস্থানরত ইসরাইলি সেনাদের উপর হামলা পরিচালনা করে বড় ধরনের প্রতিশোধ নিতে পারে হামাস যোদ্ধারা। গাজা উপত্যকার সর্বত্র হামাস যোদ্ধারা নিজেদের শক্তি এবং সামর্থ দ্বারা দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই অব্যাহত রেখেছে। হামাস ইসরাইলের মধ্যকার দীর্ঘদিনের যুদ্ধ বিরতি আলোচনা অবশেষে বাস্তবতায় পৌছাতে চলেছে। পশ্চিমা মিডিয়া রয়টার্স ও এএফপির খবরে বলা হয়েছে ইসরাইল ও হামাস যুদ্ধ বিরতির চুড়ান্ত পর্যায়ে যে কোন সময়ে দুইপক্ষের মধ্যে যুদ্ধ বিরতির বহুল কাঙ্খিত চুক্তি বাস্তবায়ন হতে পারে এবং উক্ত চুক্তি বাস্তবায়নের মাধ্যমে গাজায় গণহত্যা ধ্বংস থামবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। কাতার ও মিশরের মধ্যস্থতায় কাতার, মিশর হামাস ও ইসরাইলি প্রতিনিধিদের অংশ গ্রহনের মাধ্যমে গতকাল চুক্তির খচড়া অনুমোদিত হয়েছে। এদিকে হিজবুল্লাহ আবারও ইসরাইলের অভ্যন্তরভাগে ক্ষেপনাস্ত্র ও রকেট হামলা চালিয়েছে, হিজবুল্লাহর হামলার কিছুক্ষনের মধ্যেই ইসরাইলি সেনা বাহিনীর পক্ষ হতে দক্ষিন লেবাননে হামলা চালিয়েছে ইসরাইল।গতকাল কাতার ভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল আল জাজিরার পক্ষ হতে বলা হয়েছে ইসরাইলের বিষয়ে হিজবুল্লাহ প্রধন হামমাস নাসরুল্লাহ বলেছে ইসরাইলের মানচিত্র পরিবর্তন করে দেওয়া হবে যতক্ষন না পর্যন্ত ইহুদীবাদী রাষ্ট্র ইসরাইল ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা বন্ধ না করবে ততোক্ষন হিজবুল্লাহ যোদ্ধারা ইসরাইলের ভু-খন্ডে হামলা পরিচালনা অব্যাহত রাখবে। এদিকে ইসরাইলের সাথে যুদ্ধ বিরতি বিষয়ে কৌশল ওবাস্তবতা বিষয়ে তুরস্কের অজ্ঞাত স্থানে হামাস ও হিজবুল্লাহ নেতৃবৃন্দ বৈঠক করেছে। হামাসের পক্ষ হতে হিজবুল্লাহর সাথে বৈঠকের বিষয়ে বলা হয়েছে আমাদের সহযোদ্ধাদের পরামর্শ ও কৌশল সম্পর্কে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিকে সাগরে ইসরাইলসহ ইসরাইলি সংশ্লিষ্ট জাহাজগুলোতে হামলা অব্যাহত রেখেছে। হুতি যোদ্ধাদের পক্ষ হতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহবান জানিয়ে বলা হয়েছে ইসরাইলকে সন্ত্রাসী হিসেবে তালিকাভূক্ত করা হোক। যুদ্ধ বিরতিরচুড়ান্ত আলোচনার মাঝেও থেমে নেই দখলদার ইসরাইলের ফিলিস্তিনিদের উপর হামলা। গত দুই দিনে উত্তর ও পশ্চিম গাজায় ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ ঘটিয়েছে দখলদার ইসরাইলি বাহিনী। রাফা শহর ক্রমান্বয়ে দখলদার বাহিনীর জন্য মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। রাফার পথে পথে দখলদার বাহিনীর ওপর হামাসের প্রতিরোধ হামলা অপরাজিত আছে। গতকাল আবারও দখলদার বাহিনী ফিলিস্তিনি সাংবাদিক হত্যা করেছে। বিমান হামলা পরিচালনা করে পাঁচ ফিলিস্তিনি সাংবাদিক হত্যা করেছে। বিমান হামলা পরিচালনা করে পাঁচ ফিলিস্তিনি সাংবাদিককে হত্যা করেছে দখলদার বাহিনী। এদিকে ইসরাইলের অব্যাহত হামলা এবং ফিলিস্তিনি হত্যার বিষয়ে জাতিসংঘ আবারও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com