বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
সুন্দরবন সুন্দর নেই, ভাল নেই ঃ দায়িত্বশীলদের দায়িত্বহীনতা \ বনখেকোরা বৃক্ষ নিধন ও জীব বৈচিত্র্য নিধন করছে আওয়ামী লীগ বিরোধী অপপ্রচারের জবাব দিতে ছাত্রলীগের প্রতি আহŸান প্রধানমন্ত্রীর কৃষকরা সম্মিলিত ভাবে কাজ করলে দেশের মানুষের খাদ্যের অভাব হবেনা \ বীজ-সার বিতরণ উদ্বোধন কালে এমপি রবি সাতক্ষীরায় অপদ্রব্য মিশিয়ে নকল দুধ তৈরীর ঘটনায় ১ ব্যক্তিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা টাইব্রেকারে স্পেনকে বিদায় করে মরক্কোর ইতিহাস আজ সাতক্ষীরা মুক্ত দিবস দক্ষিণ কোরিয়াকে বিধ্বস্ত করে কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিল আশাশুনি উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে গ্রাম ডাঃ কল্যাণ সমিতির মতবিনিময় বাংলাদেশ এখন আদর্শ বিনিয়োগের কেন্দ্র -প্রধানমন্ত্রী বিজয়ের মাস ডিসেম্বর

মিয়ানমারে দুই শতাধিক বাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে জান্তা

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় রবিবার, ৫ জুন, ২০২২

এফএনএস বিদেশ: মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলের কিন, আপার কিন ও কে তাউং এলাকার বেশকিছু গ্রামে সামরিক সরকারের বাহিনী তিন দিনের অভিযানে কয়েকশ ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে। সংবাদ সংস্থা এএফপির বরাত দিয়ে দ্য গার্ডিয়ান গতকাল শনিবার এ তথ্য জানায়। যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা-নাসার স্যাটেলাইট চিত্রেও কয়েকটি গ্রামে আগুনের ধোঁয়া দেখা গেছে। ড্রোন ফুটেজে প্রায় আট কিলোমিটারজুড়ে ধোঁয়া উড়তে দেখা গেছে। গত ২৬ মে ফাঁকাগুলি ছোঁড়া হলে কিন গ্রামের লোকজন ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক ওই গ্রামের এক বাসিন্দা বলেন, ‘পরদিন ভোরে আমাদের গ্রামের ওপর ধোঁয়ার কুন্ডলী দেখতে পাই। দুই শতাধিক বাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আমার বাড়ির পুরোটাই পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। শুধু ইটপাথরের ভিত্তিটা রয়ে গেছে।’ বিরোধীদের দমনে ইদানীং প্রায়ই বিভিন্ন অঞ্চলে অভিযান চালাচ্ছে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী। গত বছরের ১ ফেব্র“য়ারি সামরিক অভ্যুত্থানে ক্ষমতা দখলের পর থেকেই দেশটির সাগাইং অঞ্চলে গণতন্ত্রপন্থী সশস্ত্র সংগঠন পিপলস ডিফেন্স ফোর্সের (পিডিএফ) সদস্যদের সঙ্গে কয়েকদিন বাদে বাদেই সামরিক বাহিনীর সদস্যদের সংঘর্ষ হচ্ছে। পিডিএফ সদস্যরা প্রশিক্ষণের জন্য জঙ্গলকে বেছে নেন। মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী এই পিডিএফ সদস্যদের দমনে স্থলপথের অভিযানের পাশাপাশি বিমান হামলার আহŸান জানায়। ক্ষতিগ্রস্ত এক গ্রামবাসী বলেন, ‘আমার জীবন শেষ, আমার বাড়িটা ধ্বংস করা হয়েছে। বেঁচে থাকার অবলম্বন বলতে আমার আর কিছুই রইল না।’ অন্যদিকে, গত মঙ্গলবার এক ভাষণে জান্তা সরকারের প্রধান মিন অং হ্লাইং বলেন, ‘সন্ত্রাসী কর্মকান্ড নিয়ন্ত্রণে যেসব অভিযান চালানো হয় তাতে যেন হতাহত কম হয়, তার সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com