বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ১১:১৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
লিগ্যাল এইডের সেবা প্রদানে আন্তরিক ভাবে কাজ করতে হবে \ চাঁদ মোহাম্মদ আব্দুল আলিম আল-রাজী, জেলা ও দায়রা জজ সাতক্ষীরা আমার সময়ে হত্যা সহ চাঞ্চল্যকর সকল ঘটনার আসামীকে দ্রুত সময়ের মধ্যে আটক করা হয়েছে \ সংবর্ধান প্রদান অনুষ্ঠানে বিদায়ী পুলিশ সুপার সরকার জ¦ালানিকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে -প্রধানমন্ত্রী ভূমি সেবা পেতে যেন কেউ ভোগান্তির শিকার না হয় \ দুর্নীতি মুক্ত ভূমি কার্যক্রম বিষয়ক সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজ পবিত্র আশুরা সাতক্ষীরায় মহিলা আ’লীগ ও জাতীয় মহিলা সংস্থার আয়োজনে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন পালিত গাবুরা লক্ষি¥খালী মোহাম্মাদিয়া জামে মসজিদ উদ্বোধন করলেন এসপি মোস্তাফিজুর রহমান আবারও তাপপ্রবাহ শুরু, লঘুচাপ বাড়াতে পারে বৃষ্টি শোকাবহ আগস্ট উন্নত যাতায়াত যোগাযোগ ব্যবস্থায় বাংলাদেশ

যশোরে বিষপানে মা-ছেলের মৃত্যু

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় রবিবার, ৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

এফএনএস: যশোরে বিষপানে সেই মা-ছেলের মৃত্যু হয়েছে। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যান। হাসপাতালের নারী ওয়ার্ডের দায়িত্বরত চিকিৎসক ফারহানা ইয়াসমিন মাকে এবং শিশু ওয়ার্ডে দায়িত্বরত চিকিৎসক মাসুম বিল­াহ ছেলেকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃতরা হলেন- সদর উপজেলার সাতমাইল তীরেরহাট গ্রামের মনিরুল ইসলামের স্ত্রী সালেহা বেগম (৩২) ও তার ছেলে হাসানুর রহমান বান্না (৫)। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিষপানের পর মা-ছেলেকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসক তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে রেফার করেন। কিন্তু পরিবারের সদস্যরা তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকেও মা-ছেলেকে ঢামেক হাসপাতালে রেফার করা হয়। তবে পরিবারের আর্থিক সামর্থ্য না থাকায় ফের যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে তারা। পারিবারিক সূত্র জানায়, গত ১ ফেব্র“য়ারি সন্ধ্যার দিকে প্রতিবেশী হাফিজুর রহমানের ছেলে রনি ওই গৃহবধূ সালেহার ঘরে ঢুকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন। এ সময় চেঁচামেচি করলে রনি ঘর থেকে পালিয়ে যান। পরদিন বিষয়টি নিয়ে সালিশ হয়। সেখানে রনি নিজের অপরাধ স্বীকার করলে তাকে শাস্তিস্বরূপ জরিমানা করা হয়। কিন্তু দেবর মনিরুজ্জামান মনি তার ভাবি সম্পর্কে খারাপ কথা বলেন। এতে অভিমানে সালেহা বৃহস্পতিবার পাঁচ বছরের শিশু হাসানুর রহমান বান্নাকে ঘাস মারার বিষ খাইয়ে নিজেও পান করেন। যশোর হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের ডা. ওবাইদুল কাদির উজ্জ্বল বলেন, শিশু ও গৃহবধূর শারীরিক অবস্থা খারাপ দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢামেক হাসপাতালে রেফার করা হয়। আর্থিক সমস্যা থাকায় ফের তারা যশোর হাসপাতালে আসে শুনেছি। গত শুক্রবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুজনই মারা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com