সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৯:২১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
পাখি মানব সমাজের ঘনিষ্ঠ \ প্রকৃতি প্রেমী \ দেশে আসছে অতিথি পাখি \ পাখি নিধন বন্ধ হোক \ ব্যাঙ, কুচে হারিয়ে যাচ্ছে সকল ধর্মের মূল কথা মানবসেবা মানবাধিকার পরিস্থিতির উপর জেলা পর্যায়ের ডায়ালগ সভায় -জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার মোঃ মনিরুল ইসলাম সাতক্ষীরায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস উদযাপন প্রস্তুতি সভা কানাডাকে উড়িয়ে শীর্ষে ক্রোয়েশিয়া বেলজিয়ামকে স্তব্ধ করে মরক্কোর দুর্দান্ত জয় যুব সমাজকে মাদক ও জঙ্গীবাদ থেকে দূরে রাখতে হবে -পুলিশ সুপার কাজী মনিরুজ্জামান ব্যাংকিং খাতের সবশেষ অবস্থা জানতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী আইনজীবী সহকারীরা বিচারঙ্গনের প্রাণ ঃ সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ কবি শেখ মফিজুর রহমান কোস্টারিকার সঙ্গে পারলো না জাপান রেকর্ড গড়েই আর্জেন্টিনাকে জয় এনে দিলো মেসি

রাজিব গান্ধীর হত্যাকারী জেল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

এফএনএস বিদেশ: রাজিব গান্ধী হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের একজন এজি পেরারিভালান। ৩১ বছর ধরে কারাগারে আছেন তিনি। স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার ভারতের সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছেন- তাকে মুক্তি দেওয়া হবে। এনডিটিভি জানিয়েছে, এই রায়ের ফলে শ্রীলঙ্কার নাগরিক নলিনি শ্রীহরণ এবং তার স্বামী মুরুগানসহ অন্য ছয়জন দোষীর মুক্তির পথ প্রশস্ত করেছে। রাজিব গান্ধীকে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী সিভারাসনের জন্য ৯ ভোল্টের দুটি ব্যাটারি কিনেছিলেন পেরারিভালান। ওই সময় পেরারিভালানের বয়স ছিল ১৯ বছর। তার কিনে দেওয়া ব্যাটারি রাজিব গান্ধীকে হত্যায় ব্যবহৃত বোমায় কাজে লাগানো হয়েছিল। ১৯৯৮ সালে সন্ত্রাসবিরোধী আদালতে পেরারিভালানকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেওয়া হয়। পরের বছর সুপ্রিম কোর্ট সেই রায় বহাল রাখেন। কিন্তু ২০১৪ সালে এসে যাবজ্জীবন সাজা করে দেওয়া হয়। চলতি বছরের মার্চে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত পেরারিভালানের জামিন মঞ্জুর করেন। এর কিছুদিনের মধ্যেই পেরারিভালান আপিল করে আগাম জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার অনুরোধ জানান। কেন্দ্রীয় সরকার পেরারিভালানের আবেদনের বিরোধিতা করে বলেছিল যে তামিলনাড়ুর গভর্নর বিষয়টি প্রেসিডেন্ট রাম নাথ কোবিন্দের কাছে উলে­খ করেছে। তবে প্রেসিডেন্ট এখনো এ বিষয়ে কোনো কথা বলেননি। এর আগে তামিল নাড়ুর গভর্নর দোষী সাতজনকে মুক্তি দেওয়ার পক্ষে কথা বলেন। মূলত মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্তে তিনি এটি করেছেন। গত সপ্তাহে শুনানির সময় কেন্দ্রীয় সরকার তার যুক্তি দেখিয়ে আদালতে আপত্তি করে বলেছিল যে, কারো ব্যাপারে করুণা মঞ্জুর করার ক্ষেত্রে শুধু প্রেসিডেন্টের একচেটিয়া ক্ষমতা থাকবে। তখন আদালত বলেছেন, এ কথার অর্থ- এত বছর ধরে গভর্নরদের দ্বারা প্রদত্ত করুণা অসাংবিধানিক হবে। সূত্র : এনডিটিভি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com