শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন

শারীরিকভাবে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন সন্তানরা বোঝা নয় -প্রধানমন্ত্রী

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১ এপ্রিল, ২০২২

এফএনএস: খেলাধুলাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড সন্তানদের সফলতার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তারা বোঝা নয়। বরং তাদের নিয়ে আমরা গর্ব করতে পারি। গতকাল বৃহস্পতিবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে ‘বঙ্গবন্ধু চার জাঁতি ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ২০২২’-এর সমাপনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। শেখ হাসিনা বলেন, এ খেলার মধ্য দিয়ে তাদের (ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড) যে খেলার প্রতি একান্ত আগ্রহ এবং খেলার যে শক্তি ও মেধা সেটাই প্রকাশ পেয়েছে। কাজেই আজকে ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড যারা তারা আমাদের কোনো বোঝা না। তাদের নিয়ে আমরা গর্ব করতে পারি। তাদেরও আমরা আমাদের একজন মনে করি। এটাই হচ্ছে সবচেয়ে বড় কথা। বিভিন্ন সময় আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড খেলোয়াড়দের সফলতার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড যারা তারাই কিন্তু সব থেকে বেশি স্বর্ণ বিজয় করেছে বাংলাদেশের জন্য। ২১৬টি স্বর্ণসহ অনেক ট্রফি বাংলাদেশের জন্য নিয়ে এসেছে। আমাদের সুস্থ যারা তারা কিন্তু এটা পারেনি। পেরেছে কারা আমাদের যারা ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড। তাদের আন্তরিক অভিনন্দন। শেখ হাসিনা বলেন, এরা তো আমাদেরই সন্তান। তাদের আমাদের সব রকম সহযোগিতা করতে হবে। এ কথা সবাইকে মনে রাখতে হবে। তাদের জন্য আমার সব সময় ইয়ে থাকবে যেহেতু তারাই আমাদের বেশি সম্মান নিয়ে আসে। অন্য খেলাধুলাও বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছি। বিত্তবানদের ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড মানুষের সহযোগিতায় এগিয়ে আসার আহŸান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চাকরি খাতে ১ শতাংশ কোটা আছে। কোনো ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড মানুষকে চাকরি দিলে তাদের সরকারের পক্ষ থেকে বিশেষ সুবিধা দেওয়া হবে। খেলাধুলার প্রসারে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিটি বিভাগীয় শহরে আমরা বিকেএসপি করে দিচ্ছি। শুধু রাজধানী কেন্দ্রিক না। আটটা বিভাগে আটটা বিকেএসপি হবে। পাশাপাশি সমস্ত উপজেলায় একটা করে মিনি স্টেডিয়াম করে দিচ্ছি। মিনি স্টেডিয়ামটা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। খেলাধুলার সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের সম্পৃক্ততার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার পরিবারের সবাই খেলাধুলার সঙ্গে জড়িত ও আন্তরিক ছিল। মা নিজে উৎসাহ দিতেন খেলাধুলায়। অনুষ্ঠান থেকে প্রধানমন্ত্রী ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড শিশু-কিশোরদের খেলাধুলার বিকাশে ১০ কোটি টাকার ফান্ড তৈরি করে দেওয়ার ঘোষণা দেন। একইসঙ্গে তিনি বঙ্গবন্ধু চার জাঁতি ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড ক্রিকেট টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়দের ৫ লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দেন। টিমের অন্য সদস্যদেরও পুরস্কার দেওয়া হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে এ টুর্নামেন্টের ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে টুর্নামেন্টের পুরস্কার তুলে দেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। এ সময় উপস্থিত থেকে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, ন্যাশনাল প্যারালিম্পিক কমিটি অব বাংলাদেশের মহাসচিব ইঞ্জিনিয়ার মাকসুদুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মেজবাহ উদ্দিন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com