রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ১০:০২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
দিল্লির সঙ্গে পানি বন্টন, নিরাপত্তা ও বাণিজ্য বিষয়ে আলোচনা হয়েছে: শেখ হাসিনা দেবহাটা উপজেলা চেয়ারম্যান আলফেরদৌস আলফাকে পারুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষে সম্বর্ধনা ইসরাইলি হেলিকপ্টারে ক্ষেপনাস্ত্র হামলা মথুরেশপুরের মসজিদ হতে মাইকের ব্যাটারী চুরি সাতক্ষীরায় সড়ক দুর্ঘটনা রোধকল্পে মোবাইল কোর্ট শ্যামনগর গাবুরায় খোলপেটুয়ার বেড়িবাঁধে ভয়াবহ ভাঙন, আতংকে এলাকাবাসী প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে শিশু লামিয়ার চিকিৎসার সহায়তা প্রদান সাতক্ষীরা সদরের নবনির্বাচিত এমপি আশু ও উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুকে সংবর্ধনা প্রদান পাইকগাছার ১০ হাজার কৃষকের মাঝে নারিকেল চারা, বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ সুস্থ্য সবল জাতি গঠনে মাছের উৎপাদন বাড়ানোর বিকল্প নাই…এমপি রশীদুজ্জামান

হামাসের শক্তি অরক্ষিত ঃ গাজার প্রতিটি সুড়ঙ্গ সুংহত

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় বুধবার, ২২ মে, ২০২৪

দৃষ্টিপাত ডেস্ক॥ দখলদার ইসরাইলি বাহিনী গাজা উপত্যকায় দীর্ঘ আট মাস যাবৎ বিমান হামলা চালিয়ে হামাসকে নির্মূল ও ধ্বংসকরার চেষ্টা করলেও হামাস যোদ্ধারা নির্মূল হইনি বরঞ্চ প্রতিনিয়িত হামাস শক্তি অব্যাহত শক্তি সঞ্চয় করে চলেছৈ এবং দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর উপর প্রতিরোধ হামলা পরিচালনা করে চলেছে এবং হামাসের প্রতিরোধ হামলা অত্যন্ত পরিকল্পিত ও সার্থক। হামাসের পক্ষ হতে তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে সংগঠনটির মুখপাত্র আবু ওবায়দা বলেছে হামাস পরিপূর্ণ শক্তি ও সামর্থ নিয়ে নিজের অবস্থান জানান দিয়ে চলেছে এবং দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর সদস্যদের উপর হামলা পরিচালনা করছে। আবু ওবায়দা আরও বলেছে ইতিমধ্যে দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর অন্তত ঃ পাঁচ হাজারের অধিক সেনাকে হত্যা করেছে। দখলদার বাহিনীর অন্তত দশ হাজার সদস্য ইসরাইলের প্রতিবন্ধী কল্যান সমূহে চিকিৎসা গ্রহন করছে। ইসরাইলি বাহিনী হামাসেরদাবীকে অস্বীকার করে বলেছে হামাসেরদাবী কোন অবস্থাতেই সত্যনয়। ইসরাইলি সেনাদের বিশেষ করে সংখ্যাগরিষ্ঠ সেনারা হামাসের নির্মূল ও নিয়ন্ত্রনের লক্ষে কাজ করছে তাদের হাতে দেশটি দুই শতাধীক সেনা নিহত হতে পারে। হামাসের পক্ষ হতে আরও দাবী করা হয়েছে দখলদার বাহিনীর সদস্যদের হত্যা, তাদের ট্রাঙ্ক ও সামরিক যান হামাসকর্তৃক নিহত ও ধ্বংসকরার খবর ইসরাইলি বাহিনী প্রকাশ ও প্রচার করছে না। যে কারনে দখলদার বাহিনীর প্রকৃত ক্ষয়ক্ষতির খবর বিশ্ব মিডিয়া পাচ্ছে না। দীর্ঘ আট মাসের ব্যবধানে দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর সদস্যরা কোন অবস্থাতেই হামাসকে সামান্যতম দুর্বল করতে পারেনি আর এ কারনে হামাসযোদ্ধারা বীরদর্পে দখলদার ইসরাইলের বিরুদ্ধে লড়াই করে চলেছে। গত চব্বিশ ঘন্টায় দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর সদস্যরা গাজা উপত্যকার বিভিন্ন এলাকাতে বিমান হামলা চালিয়ে অন্তত শতাধীক ফিলিস্তিনিকে হত্যঅ করেছে। নিহত ফিলিস্তিনিদের মধ্যে নারী ও শিশুর সংখ্যা সর্বাধিক। দখলদার ইসরাইলি বাহিনী গাজাকে নিশ্চিহৃ করতে চাইছে। ফিলিস্তিনিদেরকে নিশ্চিহৃ করতে চাইছে যে কারনে তাদের হত্যাকান্ডের অন্যতম প্রধান লক্ষবস্তুতে পরিনত হয়েছে ফিলিস্তিনি নারী শিশুরা কারন নারীদেরকে বেশী বেশী হত্যা ফিলিস্তিনিদের জন্ম রোধ হবে আর শিশু দেরকে অধিক পরিমান হত্যা করলে আগামীর ফিলিস্তিন প্রজন্ত শুন্যের কোঠায় পৌছাবে। এদিকে পশ্চিম তীরে দখলদার বাহিনীর পৃথক হামলায় সাত ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। হামাস যোদ্ধারা এতটুকু শক্তিশালী ও সামর্থবান যে তারা নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরী করা অস্ত্রের মাধ্যমে সুড়ঙ্গে অবস্থান নিয়ে যুদ্ধ করছে। হামাস যোদ্ধাদেরকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হত্যার মিশনে নেমেছে বিশেষ করে হামাস নেতাদেরকে হত্যা করার ঘোষনা দেওয়ার পর থেকে দৃশ্যতঃ হামাস যোদ্ধারা একদিকে প্রতিরোধ হামলা জোরদার করেছ অন্যদিকে হামাস নেতারা নিরাপত্তা বলয়ে আশ্রয় নিয়েছে। কাতার ভিত্তিক আল জাজিরা টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে হামাস প্রধান ইসমাইল হানিয়া সহ প্রথম শ্রেণির উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নেতা বর্তমানে কাতারে অবস্থান করছে। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবার পাল্টা সুরে কথা বলছে দীর্ঘদিন যাবৎ গাজায় গণহত্যা চলছে অবিলম্বে গাজায় গণহত্যা বন্ধ করতে হবে এমন আহবান জানিয়ে এসে এবার তিুিন ভিন্ন সুরে কথা বলা শুরু ুকরলো,রয়টার্স ও এএফপির খবরে বলা হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন গাজায় গণহত্যা চলছে না। গাজায় খাদ্য অভাব ব্যাপক মাত্রায় ছড়িয়ে পড়েছে। খাদ্যের পাশাপাশি সুপেয় পানির অভাব হেতু গাজা বাসিচরম মানবেতর জীবন যাপন করছে। জাতিসংঘের পক্ষ হতে বলা হয়েছে গাজায় বিমান হামলায় যে পরিমান ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে যে অপেক্ষা অধিকতর ফিলিস্তিনির মৃত্যু ঘটবে খাদ্য ও চিকিৎসা অভাবে। গাজার বিখ্যাত হাসপাতাল আল সিফা হাসপাতালের ধ্বংস স্তুপের মাঝে বিপুল সংখ্যক নিহত ফিলিস্তিনির লাশ আছে। ধ্বংস স্তুপের আশপাশে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। দখলদার ইসরাইলি বাহিনী ফিলিস্তিনিদের হত্যা করে তাদের মৃতদেহ পুতে রেখেছে। আল জাজিরা টেলিভিশন জানিয়েছে আল সিফা আল নাসের হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকার পর এবার উত্তর গাজায় গনকবরের সন্ধান পেয়েছে ফিলিস্তিনি উদ্ধার কারীরা। মিশর সীমান্তদখলদার বাহিনী বন্ধ করে দেওয়ায় রাফা শহরের মাঝে মিশরে যোগাযোগ সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ হয়ে গেছে যে কারনে মিশর হতে কোন ধরনের ত্রান সামগ্রী রাফা শহরে প্রবেশ করছে না। ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ হিজবুল্লাহর এক শীর্ষ স্থানীয় কমান্ডারকে হত্যা করেছে বলে ঘোষনা দিয়েছে অবশ্য হিজবুল্লাহর পক্ষ হতে তা অস্বীকার করা হয়েছে। যতই দিন যাচ্ছে ততোই হামাস যোদ্ধাদের প্রতিরোধ হামলা জোরদার হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com