সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
হারিয়ে যাচ্ছে ডাক বিভাগের ঐতিহ্য \ দেখা নেই চিঠি হাতে ডাক পিয়নের চিঠির পরিবর্তে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার \ কুরিয়ার সার্ভিস গুলোর সেবার মান নিয়ে প্রশ্নের শেষ নেই মিরাজের দৃঢ়তায় বুক কাঁপিয়ে জয় টাইগারদের বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের অধিনায়ক সাফ জয়ী সাবিনা খাতুন ও ডিফেন্ডার মাসুরা পারভীনকে সংবর্ধনা প্রদান দেশ বাঁচাতে নৌকায় ভোট দিন \ চট্টগ্রামের জনসভায় প্রধানমন্ত্রী বীর নিবাস পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির সাতক্ষীরায় বকচরা এলজিইডির কাপেটিং রাস্তায় কাজের উদ্বোধন এমবাপে-জিরুদের গোলে শেষ আটে ফ্রান্স সাতক্ষীরায় কমিউনিটি ক্লিনিকে রোগী দেখলেন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ ফারহাদ জামিল সশস্ত্র বাহিনীর জন্য আধুনিক ও সময়োপযোগী যুদ্ধাস্ত্র সংগ্রহ করছে সরকার -প্রধানমন্ত্রী কলারোয়ায় সরিষা ফুলের মৌ মৌ গন্ধে মুখরিত ফসলের মাঠ

হিজাব নিষিদ্ধ: মুসলিম নারীদের বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিপেটা

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

এফএনএস বিদেশ : ভারতের উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদে হিজাব নিষিদ্ধের প্রতিবাদে বোরকা পরিহিত মুসলিম নারীদের বিক্ষোভে পুলিশ লাঠিপেটা করেছে। ওই বিক্ষোভের একটি ভিডিওতে দেখা যায়, পুলিশ লাঠি দিয়ে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করছে। এ সময় এক নারী বিক্ষোভকারী পুলিশের লাঠিপেটা থামানোর চেষ্টা করছেন। ঘটনাটি গত রোববার ঘটলেও বুধবার এনডিটিভি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানা যায়। কর্ণাটকের একটি কলেজে প্রথম হিজাব নিষিদ্ধ করা হয়। এরপর কর্ণাটকসহ দেশটির বিভিন্ন প্রদেশে এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে বিক্ষিপ্তভাবে বিক্ষোভ চলছে। হিজাব নিষিদ্ধের বিষয়টি নিয়ে দেশটির উচ্চ আদালতে শুনানি চলছে। ভিডিওটি সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে কিছু মানুষ পুলিশের এমন পদক্ষেপের সমালোচনা করেছেন। আর পুলিশ বলছে, তারা ভিডিওটি খতিয়ে দেখছে। এ ছাড়া পুলিশ বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে থানায় প্রাথমিক অভিযোগ (এফআইআর) দায়ের করেছে। এফআইআরে পুলিশের অভিযোগ, প্রায় ১৫ জন মুসলিম নারী গাজিয়াবাদের সানি বাজার রোডে জড়ো হয়ে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ করছে এমন খবরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। পুলিশ সেখানে পৌঁছালে বিক্ষোভকারীরা উচ্চৈঃস্বরে শ্লোগান দিতে থাকে। এফআইআরে আরও বলা হয়, নারী কনস্টেবলরা বিক্ষোভকারীদের সরানোর চেষ্টা করতে গিয়ে হেনস্তার শিকার হন। এ সময় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে থাকা কয়েকজন পুরুষও নারী কনস্টেবলদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার শুরু করেন। অভিযুক্তদের একজন হলেন রইস। তিনি নারী কনস্টেবলদের হুমকি দিয়েছেন বলেও অভিযোগ করা হয় এফআইআরে। ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে জানিয়ে গাজিয়াবাদ ইন্দিরাপুরামের এক পুলিশ কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেছেন, ঘটনাটি রোববার ঘটেছে। পুলিশ যখন টহল দিচ্ছিল তখন তারা ১০-১৫ জনের এই বিক্ষোভের বিষয়ে অবগত হয়। পরে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়। পুলিশের করা এফআইআরে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের ব্যাপারে তাদের কোনো বক্তব্য এনডিটিভির ওই প্রতিবেদনে পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com