রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৬:১৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবার মূল্য নির্ধারণে গড়িমসি কলারোয়ায় দুই পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলিসহ অস্ত্র ব্যবসায়ী আটক বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর উদ্যোগে সাতক্ষীরা অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী প্রতাপনগরের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বেড়িবাঁধ নির্মাণে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ সাতক্ষীরায় জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উপলক্ষে আলোচনা সভা সিলেটে ত্রাণ দিলো সাতক্ষীরা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট শিক্ষার্থীরা শিক্ষক উৎপল হত্যার প্রতিবাদে সাতক্ষীরা বাশিস সভা সাতক্ষীরায় আলম সাধু চালককে পিটিয়ে টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ দেবহাটায় পৃথক অভিযানে ফেনসিডিল সহ গ্রেফতার ৪ বৃষ্টি কমে বাড়তে পারে তাপমাত্রা

১৩ পাটকল ইজারা নিতে ৫৩টি প্রস্তাব এসেছে -মন্ত্রী

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২২

এফএনএস: বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেছেন, বাংলাদেশ পাটকল করপোরেশনের (বিজেএমসি) ভাড়াভিত্তিক মিলে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় উৎপাদন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এরইমধ্যে দুটি মিল ইজারা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ১৩টি মিলের জন্য দ্বিতীয় ইওআই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের মাধ্যমে ১৮টি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের নিকট হতে ৫৩টি প্রস্তাব এসেছে। গতকাল সোমবার নরসিংদীর পলাশে বাংলাদেশ জুট মিলস্ লিমিটেডের উৎপাদন কার্যক্রম পরিদর্শনকালে এসব তথ্য জানান তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বস্ত্র ও পাট সচিব মো. আবদুর রউফ, নরসিংদীর জেলা প্রশাসক আবু নইম মোহাম্মদ মারুফ খানসহ অন্যান্যরা। মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ জুট মিলস্ লি: নরসিংদী ও কেএফডি জুট মিলস্ লি: চট্টগ্রাম- এ দুটিকে এরইমধ্যে ভাড়াভিত্তিক ইজারা দেওয়া সম্ভব হয়েছে। অপর দুটি জুট মিল (ক্রিসেন্ট জুট মিলস্ লি:, খুলনা ও হাফিজ জুট মিলস্ লি:, চট্টগ্রাম এর লিজ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এছাড়াও ১৩টি মিলের জন্য পাওয়া ৫৩টি প্রস্তাব যাচাই-বাছাই করে মূল্যায়ন কমিটি একটি প্রতিবেদন বিজেএমসিতে দাখিল করেছে। বিজেএমসি মূল্যায়নকৃত প্রতিষ্ঠানসমূহকে আরএফপি দেওয়ার অনুমতি চেয়ে মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠিয়েছে। মন্ত্রী আশা প্রকাশ করে বলেন, এ পর্যায়ে আরও কয়েকটি মিল ভাড়াভিত্তিক লিজ দেওয়া সম্ভব হলে নতুন করে অনেকের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে এবং এ ক্ষেত্রে অবসানকৃত শ্রমিকরা অগ্রাধিকার পাবেন। সরকারি সিদ্ধান্তে পাটকলগুলোর বিরাজমান পরিস্থিতির স্থায়ী সমাধান ও পাটখাতকে পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষ্যে ২০২০ সালের ১ জুলাই হতে বিজেএমসির নিয়ন্ত্রণাধীন রাষ্ট্রায়ত্ত ২৫টি জুট মিলের উৎপাদন কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এরপর ২৫টি জুট মিলের সব স্থায়ী শ্রমিকের গ্রাচ্যুইটি (চাকরি ছাড়ার পর এককালীন অর্থ), পিএফ (প্রভিডেন্ট ফান্ড) ও ছুটি নগদায়নসহ সমুদয় পাওনা গোল্ডেন হ্যান্ডশেক সুবিধার মাধ্যমে প্রায় তিন হাজার ৫৬৩ কোটি টাকা পরিশোধ করা হয়। এছাড়াও যাচাইকৃত বদলি শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি, মামলা নিষ্পত্তি/প্রত্যাহারজনিত স্থায়ী শ্রমিকদের পাওনা, মিল চলাকালীন সময়ের ৬৪ সপ্তাহের বকেয়া মজুরি, অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা/কর্মচারীদের গ্রাচ্যুইটিসহ সকল দায় এবং কাঁচাপাট ব্যবসায়ীদের বকেয়া পাওনা পরিশোধের লক্ষ্যে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় এবং অর্থ মন্ত্রণালয় জোর তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2022 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com